কুমিল্লার বরুড়ায় মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন

কুমিল্লা

কুমিল্লার বরুড়ায় মিথ্যা মামলা প্রত্যারের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার সকালে উপজেলার এগারগ্রাম উত্তর-পূর্বপাড়ার ভুক্তভোগী এলাকাবাসীর আয়োজনে বরুড়া প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিপুল সংখ্যক নারী-পুরুষ অংশগ্রহণ করে।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ‘ওই গ্রামের মাওলানা আবদুল খালেক তার বাড়ির সামনে দিয়ে এলাকার মানুষের শতবছরের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেয়। এ বিষয়ে এলাকাবাসী স্থানীয় ভবানীপুর ইউপি চেয়ারম্যান ˆসয়দ রেজাউল হক ও ইউপি মেম্বার কামাল হোসেনের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে চেয়ারম্যান, মেম্বার ও এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তি বর্গের উপস্থিতিতে কয়েকদফা সালিশী সিদ্ধান্তের মাধ্যমে গত ২৯ জুলাই রাস্তাটি জনচলাচলের জন্য উনĄুক্ত করে দেয়া হয়। আবদুল খালেক কৌশলে ওই দিন রাস্তা সংস্কারের ভিডিও দৃশ্য ধারণ করে সাবেক ইউপি মেম্বার নুরুল ইসলাম (৮০) সহ ১৫ জন গ্রামবাসীর নামে বরুড়া থানায় উদ্দ্যেশ্য প্রণোদিত ভাবে মামলা দায়ের করে। এরপর আবারো গত ৪ আগস্ট কুমিল্লা ফোজদারী আদালতে আরেকটি মামলা দায়ের করে। মিথ্যা মামলার শিকার হয়ে বর্তমানে তারা খুব আতংকের মাঝে দিন কাটাচ্ছেন।’
ভুক্তভোগী সাবেক ইউপি মেম্বার নুরুল ইসলাম বলেন, ‘আমি চেয়ারম্যান সাহেবের নির্দেশে সালিশে উপস্থিত ছিলাম। শেষ পর্যন্ত আমাকেও শেষ বয়সে এসে মিথ্যা মামলার শিকার হতে হলো।’ মানববন্ধন শেষে বরুড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ প্রদান করেন ভুক্তভোগীরা।
এ বিষয়ে ইউপি মেম্বার কামাল হোসেন বলেন, ‘রাস্তার বিষয়টি আমরা কয়েকদফা সালিশী ˆবঠকের মাধ্যমে মীমাংসা করেছি। সর্বসিদ্ধান্তক্রমে শতবছরের পুরনো রাস্তাটি জনচলাচলের জন্য উনĄুক্ত করে দেয়া হয়। কিন্তু জনাব আবদুল খালেক উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রামবাসীকে হয়রানি করছে।’

আপনার ভাবনা জানান