চট্টগ্রামে পাহাড়ে দলবেঁধে ধর্ষণ মামলার সন্দেহভাজন আসামী বন্দুক যুদ্ধে নিহত

অপরাধ ধর্ষন

চট্টগ্রামের আনোয়ারায় তরুণীকে দলবেঁধে ধর্ষণের ঘটনার সন্দেহভাজন এক ব্যক্তির গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধারের কথা জানিয়েছে পুলিশ।

আনোয়ারা থানার ওসি দুলাল মাহমুদ বলছেন, ‘সন্ত্রাসীদের দুই পক্ষের গোলাগুলির’ খবর পেয়ে রোববার সকালে চায়নিজ ইকোনমিক অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল জোনের পাহাড় থেকে তারা লাশটি উদ্ধার করেন।

নিহত আব্দুর নূরের (২৫) বাড়ি আনোয়ারা উপজেলার বৈরাগ ইউনিয়নে। তার বিরুদ্ধে ডাকাতি, ছিনতাইসহ বিভিন্ন অভিযোগে চারটি মামলা রয়েছে বলে পুলিশের ভাষ্য।
ওসি বলেন, “তিন দিন আগে কোরিয়ান ইপিজেডের এক কর্মীকে দলবেঁধে ধর্ষণের ঘটনার অন্যতম সন্দেহভাজন ছিলেন নূর। ওই ঘটনায় গ্রেপ্তার দুইজন শনিবার আদালতে যে জবানবন্দি দিয়েছে, সেখানেও নূরের নাম এসেছিল।”

‘সন্ত্রাসীদের অভ্যন্তরীণ বিরোধে’ নূর নিহত হয়ে থাকতে পারে মন্তব্য করে ওসি বলেন, “গোলাগুলির খবর শুনে আমরা সেখানে গিয়ে লাশ পাই। লাশের পাশে একটি এলজি ও চার রাউন্ড কার্তুজ পাওয়া যায়। পরে খোঁজ নিয়ে তার পরিচয় জানতে পারি।”

বিস্তারিত আসছে….