দিনে গ্রেপ্তার রাতে বন্দুক যুদ্ধে নিহত মাদক ও ডাকাতি মামলার আসামী

অপরাধ

পাবনার বেড়া উপজেলায় কথিত বন্দুকযুদ্ধে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন বলে পুলিশের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দাবি, নিহত ব্যক্তি মাদক ব্যবসায়ী ও ডাকাত দলের সদস্য।

নিহত ব্যক্তির নাম মো. ওয়ালী উল্লাহ (৩১)। তিনি বেড়া পৌর সদরের সানিলা মহল্লার বাসিন্দা। তাঁর বিরুদ্ধে পাবনার বিভিন্ন থানা ও সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর থানায় মোট আটটি ডাকাতি ও মাদক মামলা রয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে বেড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহীদ মাহমুদ দাবি করেন, গতকাল বুধবার এক অভিযানে চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী ওয়ালী উল্লাহকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাঁর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে গতকাল দিবাগত রাত ৩টার দিকে ওয়ালী উল্লাহকে নিয়ে পৌর সদরের জোরদা এলাকায় মাদক ও অস্ত্র উদ্ধার অভিযানে যায় পুলিশ।
‘উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক কারবারিরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি করলে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। গোলাগুলির একপর্যায়ে মাদক কারবারিরা পিছু হটলে ঘটনাস্থল থেকে ওয়ালী উল্লাহকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। তাঁকে বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ ভোর সাড়ে ৫টার দিকে তিনি মারা যান।’
ওসি আরো দাবি করেন, ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল, একটি শাটারগান, দুটি ম্যাগাজিন, ছয়টি গুলি ও ১৭ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় উপপরিদর্শক (এসআই) শামসুল ইসলামসহ তিনজন কনস্টেবল আহত হন। তাঁদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।