ফেনীতে ১শ সাংবাদিককে প্রশিক্ষণ দিয়েছে প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ-পিআইবি

বুধবার ডিসেম্বর ২, ২০২০ ১২:০০ পূর্বাহ্ণ
লেখাটি এই যাবৎ ১২ বার পঠিত হয়েছে

ফেনীতে কর্মরত একশ সাংবাদিককে তিনটি ক্যাটাগরিতে প্রশিক্ষন দিয়েছে
প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ’র (পিআইবি)। ফেনী প্রেসক্লাব আয়োজিত
তিন ক্যাটাগরীতে ৮দিনব্যাপী প্রশিক্ষণের সমাপনী হয় সোমবার (৩০নভেম্বর)
বিকালে। এর আগে রোববার (২৩নভেম্বর) প্রশিক্ষনের উদ্বোধন করা হয়। ২৩ থেকে ২৫
তারিখ অনুষ্ঠিত হয় অনুসন্ধানমূলক রিপোর্টিং প্রশিক্ষণ, ২৬ ও ২৭ নভেম্বর
অনুষ্ঠিত হয় নারী ও শিশুদের উন্নয়নে সিআরসি, সিডও ও মীনা বিষয়ক
রিপোর্টিং প্রশিক্ষণ এবং শেষ পর্যায়ে ২৭ থেকে ৩০ নভেম্বর উপজেলায় কর্মরত
সাংবাদিকদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় বুনিয়াদী প্রশিক্ষণ।
প্রশিক্ষণ গুলোতে সভা প্রধান ছিলেন প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ’র
(পিআইবি) মহাপরিচালক জাফর ওয়াজেদ। অতিথি ছিলেন ফেনী জেলা প্রশাসক
মো: ওয়াহিদুজজামান, পুলিশ সুপার খোন্দকার নুরন্নবী ও ফেনী বিশ্ববিদ্যালয়ের
ট্রেজারার প্রফেসর তায়বুল হক, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের নির্বাহী
প্রকৌশলী মো. হাসান আলী। পিআইবি’র প্রশিক্ষক শাহ আলম সৈকত এর
পরিচালনায় প্রশিক্ষণগুলোতে প্রশিক্ষক হিসেবে দায়ীত্ব পালন করেন নিউইয়র্ক
টাইমস এর স্ট্রিংগার ও বৈশাখী টেলিভিশনের পরিকল্পনা পরামর্শক জুলফিকার আলী
মানিক, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল, স্পেশালিষ্ট আবদুল্লাহ শাহরিয়ার, কুমিল্লা
বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক কাজী আনিস,
দৈনিক ইত্তেফাকের স্টাফ রিপোর্টার ও পিআইবির প্রশিক্ষক বারেক হোসেন
কায়সার। পিআইবির সাথে প্রশিক্ষণ ব্যবস্থাপনায় ফেনী প্রেসক্লাব থেকে
উপস্থিত ছিলেন ক্লাবের সাবেক সভাপতি ও সময় টিভির ফেনী ব্যুরো প্রধান
বখতেয়ার ইসলাম মুন্না ও ডিবিসির ফেনী প্রতিনিধি আবু তাহের ভূঁইয়া।
পিআইবি মহাপরিচালক তার বক্তব্যে বলেন, যত বিভেদই থাকুক, নিজেদের স্বার্থের
প্রশ্নে সাংবাদিকদের এক হতে হবে। দুঃখজনক হলেও সত্যি করোনার
দুর্যোগকালীন সময়ে কিছু সম্পাদক ও মালিক তাদের কর্মীদের ছাঁটাই
করেছেন, নূন্যতম বেতন-ভাতাও পরিশোধ করেননি। অথচ গণমাধ্যমকর্মীরাই
করোনাকালে সঠিক দায়িত্ব পালন করেছেন।  সাংবাদিকদের কাজ দিন দিন কঠিন
হচ্ছে।  মহাপরিচালক বলেন, পেশাদার অনেক সাংবাদিকদের করোনাকালে প্রণোদনা
দেয়া হয়েছে। সময়ের ব্যবধানে সবাইকে প্রণোদনা দেয়া হবে। এ কাজ অব্যাহত
আছে। তিনি বলেন, ফেনী প্রখ্যাত সাংবাদিক আবদুস সালাম ও  এবিএম মুসার
জনপদ। সমাপনি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ফেনী জেলা প্রশাসক মো:
ওয়াহিদুজজামান বলেন, স্বাধীন দেশে, বলার ও লেখার স্বাধীনতা আছে । তবে দেশ ও
দেশের সর্বসাধারনের ক্ষতি হয় এমন লেখা থেকে বিরত থাকবেন। নিয়মিত
প্রশিক্ষনের মাধ্যমে ফেনীসহ তৃণমূল সাংবাদিকদের দক্ষ করে গড়ে তোলার উদ্যোগ
নেয়ায় পিআইবিকে ধন্যবাদ জানান ফেনী জেলা প্রশাসক ।

ডেস্ক / এমজিজে / ২০২০ / ১২০২
সোনাগাজী পৌরসভাস্থ ওয়ার্ড আ’লীগের ১৪ নেতাকে অপহরণের অভিযোগ

আসন্ন সোনাগাজী পৌরসভার নির্বাচনে অা'লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী বাছাইয়ের লক্ষে তৃনমূল যাচাই ভোটের ঘোষনা দিয়েছে ফেনী' জেলা আওয়ামীলীগ। গত বুধবার [বিস্তারিত]

সোনাগাজীর উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোর জরাজীর্ণ ভবনে চলছে চিকিৎসা কার্যক্রম

ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোর জরাজীর্ণ ভবনে চলছে চিকিৎসা কার্যক্রম । নানান ভোগান্তি আর দুর্ভোগে চিকিৎসা কার্যক্রম ব্যহত হওয়ার অভিযোগ আছে। [বিস্তারিত]

ফেনীতে ১শ সাংবাদিককে প্রশিক্ষণ দিয়েছে প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ-পিআইবি

ফেনীতে কর্মরত একশ সাংবাদিককে তিনটি ক্যাটাগরিতে প্রশিক্ষন দিয়েছে প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ’র (পিআইবি)। ফেনী প্রেসক্লাব আয়োজিত তিন ক্যাটাগরীতে ৮দিনব্যাপী প্রশিক্ষণের সমাপনী [বিস্তারিত]

এখনকার শিক্ষার্থীরা পত্রিকা না পড়ে ফেসবুক নিয়ে ব্যস্ত থাকে – ফেনী জেলা প্রশাসক

সাংবাদিকতা করতে হলে অনেক নিয়ম নীতি মানতে হবে। কিন্তু কিছু কিছু ক্ষেত্রে দেখা যায় সাংবাদিকরা দেশের কোন নিয়মনীতি মানেননা। বাংলাদেশ [বিস্তারিত]

মতামত জানান